স্বামী তার স্ত্রীর মরদেহ ফেলল সেপটিক ট্যাংকে

আশেপাশে
0
0

গাজীপুরে স্বামী তার স্ত্রী আফরোজা বেগম (২২) কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার পর সেপটিক ট্যাংকে লাশ ফেলে দিয়েছে। শনিবার সকালে মহানগরীর ভাওরাইদ উত্তরপাড়া এলাকা থেকে  ঐ মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশনিহত আফরোজা গাইবান্ধা সদরের জিকা বাড়ি এলাকার বিল্লাল হোসেনের মেয়ে তার স্বামী শাহজাহান মিয়ার বাড়ি জামালপুরের সানন্দবাড়ির মন্ডলপাড়া এলাকায়নিহত আফরোজার মামা একামত হোসেন জানান, বিগত ৭/ বছর আগে আফরোজার সঙ্গে শাহজাহানের বিয়ে হয় তাদের ঘরে বছরের একজ কন্যা সন্তান আছে আফরোজা স্থানীয় সালনা এলাকার শ্যামলী গার্মেন্টে চাকরি করিত এবং শাহজাহান স্থানীয় জোলারপাড়ে এক স্টিল মিলে চাকরি করেন তারা সহপরিবারে ভাওরাইদের মুকুল হোসেনের বাড়ি ভাড়া থাকেন শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তারা কর্মস্থল থেকে বাসায় ফিরেন সময় তাদের একমাত্র মেয়ে দাদির বাসায় ছিলশাহজাহান মিয়া রাত সাড়ে ১২টার দিকে ভাড়া বাসার পাশের রাস্তার ধারে সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা খুলে আফরোজার মরদেহ ফেলে দেন একপর্যায়ে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় মুকুল মিয়া তার শ্যালক ঘটনাটি দেখে ফেলেন ঘটনাটি কাউকে না বলার জন্য তাদের হাতেপায়ে ধরে অনুরোধ জানান শাহজাহান পরে তারা ঘটনাটি নিহতের স্বজন স্থানীয় ২৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মনজুর হোসেনকে অবহিত করেন সময় কৌশলে শাহজাহান এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থালে উপস্থিত হয়ে শনিবার সকালে মরদেহটি উদ্ধার করে তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেনগাজীপুর সদর থানা পুলিশের এসআই/ মোঃ রিয়াজ জানান, নিহতের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর জানা যাবে দাম্পত্য কলহের জেরে ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে

 

Please follow and like us:
0
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *