নির্মম নিষ্ঠুর পাশবিক এই গণপিটুনিকে কী বলা যায়? 

0
0

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

ভারতের বিহার রাজ্যের স্থানীয় এক কাউন্সিলরের ছেলেকে নির্মমভাবে পিটিয়েছে সেখানকার উত্তেজিত একদল উগ্রপন্থী হিন্দু। কাউন্সিলরের ছেলেকে মাটিতে ফেলে কিল, ঘুষি, লাথির পাশাপাশি বুকের ওপর উঠে লাফিয়ে পড়তেও দেখা যায়। শনিবার দেশটির ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়া ট্যুডে এই গণপিটুনির খবর দিলেও যুবকের পরিচয় প্রকাশ করেনি।

ইন্ডিয়া ট্যুডে বলছে, বিহারের কাইমুর জেলার ভাবুয়ার ওয়ার্ড কাউন্সিলরের ছেলে এক ব্যক্তিকে গুলি করেছেন বলে অভিযোগ উঠে। পরে গুলিবিদ্ধ ব্যক্তি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। ঘটনার পর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের অভিযুক্ত ছেলেকে স্থানীয় একদল উত্তেজিত জনতা প্রচণ্ড মারধর করে। তারা জয় শ্রী রাম স্লোগান দিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে পুলিশের সামনে কাউন্সিলরের ছেলেকে গণপিটুনি দেয়।

ভাবুয়ার শিবাজি চক এলাকায় নির্মম এই গণপিটুনির ঘটনা ঘটে। ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এতে দেখা যায়, জয় শ্রী রাম স্লোগান দিয়ে কাউন্সিলরের ছেলেকে নির্মমভাবে গণপিটুনি দিচ্ছেন উত্তেজিতরা। সময় চারদিক থেকে যুবকের ওপর একের পর এক কিল, ঘুষি, লাথি দিতে থাকে। নির্মম গণপিটুনিতে যুবক জ্ঞান হারিয়ে ফেললেও তার বুকের ওপর লাফিয়ে পড়তে দেখা যায়।

এক ব্যক্তি শূন্যে লাফিয়ে উঠে মাটিতে পড়ে থাকা যুবকের বুকের ওপর আছড়ে পড়েন। এক পথচারী নির্মম এই গণপিটুনির দৃশ্য দেখে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করেন।

কাউন্সিলরের ছেলের গুলিতে আহত ব্যক্তিকে কাউমুর সদর হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি করা হয়। কাইমুরের পুলিশ সুপার বলেছেন, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে ব্যক্তিকে গুলি করেছিলেন কাউন্সিলরের অভিযুক্ত ছেলে।

এই ব্যক্তি হাসপাতালে মারা গেছেন; এমন খবর পাওয়ার পর উত্তেজিত জনতা হাসপাতাল চত্বরে জড়ো হয়ে কাউন্সিলরের ছেলেকে হত্যা করতে পুলিশের কাছে দাবি জানায়। কাউন্সিলরের ছেলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরে উত্তেজিত জনতা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের দরজা ভেঙ্গে সেখানে ক্ষোভ দেখাতে থাকেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে; এতে দুজন আহত হন।

Please follow and like us:
0
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

call now
Poor News
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial