বস্তায় শিশুর লাশ, কারাগারে চাচা-ফুফুসহ ৭ জন : সুনামগঞ্জ 

0
0

বস্তায় শিশুর লাশ, কারাগারে চাচা-ফুফুসহ ৭ জন : সুনামগঞ্জ 

 

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তে ৭ বছরের শিশু তোফাজ্জল অপহরণ ও হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ফুফু, ২ চাচাসহ ৭ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তারা হলেন উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের চারাগাঁওয়ের সীমান্তগ্রাম বাঁশতলার কালামিয়ার ছেলে নিহত শিশু তোফাজ্জল হোসেনের ফুফা সেজাউল কবির, সেজাউলের বাবা কালা মিয়া, নিহতের ফুফু শিউলি আক্তার, একই গ্রামের মৃত কিতাব আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান হবি, তার ছেলে সারোয়ার হাবিব রাসেল, নিহতের চাচা লোকমান হোসেন ও সালমান হোসেন। এ ঘটনায় আটক অপর দু’জন শিশুটির জয়নাল ও চাচা ইকবাল কে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। রোববার ১২ই জানুয়ারি দুপুরে সন্দেহভাজন ৭ জনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাহিরপুর থানার ওসি মোঃ আতিকুর রহমান। এর আগে শিশু তোফাজ্জল হোসেনকে অপহরণের পর হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ এনে তার বাবা জুবায়ের হোসেন বেশ কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে শনিবার গভীর রাতে থানায় একটি মামলা করেন। তাহিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, শিশু তোফাজ্জল অপহরণ ও হত্যা কাণ্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে ৭ জনকে রোববার দুপুরে আদালতে হাজির করে প্রত্যেককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫/১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। পরে তাদেরকে কারাগারে প্রেরন করা হয়। গত বুধবার ৮ই জানুয়ারি বিকেলে শিশু তোফাজ্জল হোসেন নিজ গ্রাম হতে নিখোঁজ হয়। পরদিন বৃহস্পতিবার ৯ই জানুয়ারি পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় বিষয়টি লিখিতভাবে জানানো হয়। ৪ দিন পর শনিবার ভোরে ১১ই জানুয়ারি তাহিরপুর সীমান্তে সিমেন্টের বস্তায় বন্দি ঐ শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত তোফাজ্জল উপজেলার বাঁশতলা গ্রামের জুবায়ের হোসেনের ছেলে। সে প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া স্থানীয় মাদরাসার ছাত্র ছিল। নিহত তোফাজ্জল হোসেনের পরিবারের অভিযোগ, অপহরণের পর চিরকুট লিখে ৮০ হাজার টাকা মুক্তিপণ না দেয়ায় তোফাজ্জলকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ ঐ শিশুর দাদা-চাচা ও ফুফু-ফুফা, প্রতিবেশীসহ ২ দফায় ৯ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ৭ জনকে কারাগারে পাঠিয়ে দু’জনকে ছেড়ে দেয়া হয়।

Please follow and like us:
0
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

call now
Poor News
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial