ঢাকা দক্ষিণে জয়ের পথে ফজলে নুর তাপস

রাজনীতি
0
0

ঢাকা দক্ষিণে জয়ের পথে ফজলে নুর তাপস

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নির্বাচনে মেয়র পদে বিপুল ভোটে এগিয়ে আছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। মোট হাজার ১৫০টি কেন্দ্রের মধ্যে হাজার ৭৫টির ফলাফলে নৌকা প্রতীকের তাপস পেয়েছেন লাখ ৯৯ হাজার ৬৯৫ ভোট। পদে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ইশরাক হোসেন পেয়েছেন লাখ ১৯ হাজার ২৭ ভোট। শনিবার ফেব্রুয়ারি বিকেলে ভোটগ্রহণ শেষ হলে সেগুনবাগিচার শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ৫টার দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিএসসিসির ফলাফল ঘোষণা শুরু হয়। ঘোষণা করছেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্মসচিব ডিএসসিসির রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আব্দুল বাতেন। সেখানে উপস্থিত রয়েছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপসের প্রতিনিধি, তবে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেনের কোনো প্রতিনিধির দেখা মেলেনি। তাপসইশরাক ছাড়াও এই সিটিতে মেয়র পদে নির্বাচন করেছেন জাতীয় পার্টি সমর্থিত হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আব্দুর রহমান, এনপিপির বাহারানে সুলতান বাহার, গণফ্রন্টের আব্দুস সামাদ সুজন বাংলাদেশ কংগ্রেসের আকতারুজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লাহ। এদের মধ্যে হাজার ৭৫টি কেন্দ্র মিলিয়ে আব্দুর রহমান (হাতপাখা) পেয়েছেন ২৪ হাজার ৭১০ ভোট, আব্দুস সামাদ সুজন (মাছ) ১১ হাজার ৮৮১, সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন (লাঙ্গল) হাজার ২৫১, বাহারানে সুলতান বাহার (আম) হাজার ৯৬৩ আক্তারুজামান ওরফে আয়াতুল্লাহ (ডাব) পেয়েছেন হাজার ২৭ ভোট। এর আগে সকাল ৮টা থেকে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। ইভিএম জটিলতাসহ বিভিন্ন অভিযোগের মধ্য দিয়ে ভোট চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোট শেষে দক্ষিণের বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে একে একে ভোটের ফলাফল সরঞ্জামাদি নিয়ে এখানে আসতে থাকেন বিভিন্ন কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসাররা। ভোটগ্রহণ শুরু হলে সকাল ৮টায় ধানমন্ডি কামরুন্নেসা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন শেখ ফজলে নূর তাপস। সকাল ৯টায় গোপীবাগ আর কে মিশন রোডের শহীদ শাহজাহান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন ইশরাক হোসেন। ডিএসসিসিতে মোট ভোটার ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৯৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১২ লাখ ৯৩ হাজার ৪৪১ এবং নারী ১১ লাখ ৫৯ হাজার ৭৫৩। ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা এক হাজার ১৫০। সাধারণ ওয়ার্ড ৭৫ সংরক্ষিত ওয়ার্ড ২৫টি। সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪.কম

Please follow and like us:
0
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *